atm withdrawal

ATM Withdrawal – অ্যাকাউন্ট থেকে কেটে নিলেও এটিএম বেরোচ্ছেনা টাকা, ভয় নেই, জানুন বিস্তারিত।

সময়ের সাথে টাকা ব্যাবহারের নিয়মগুলোতেও পরিবর্তন (ATM Withdrawal)। কিন্তু অনেকের মুখে শোনা যায় টাকা তোলার সময় ATM-এ টাকা আটকে যায়।

এমন পরিস্থিতিতে অনেকেই ঘাবড়ে গিয়ে আবার এটিএম মেশিন থেকে টাকা তোলার চেষ্টা করেন। কিন্তু ঘাবড়ে যাবেন না! ATM-এ আটকে থাকা টাকা ফেরত পাওয়ার উপায় কী জেনে নিন!

RBI-এর নিয়ম অনুসারে, গ্রাহক যদি তার ব্যাঙ্কের ATM অথবা অন্য কোনও ব্যাঙ্কের ATM থেকে টাকা তোলেন এবং নগদ হাতে না পান। কিন্তু অ্যাকাউন্ট থেকে টাকা কেটে নেওয়া হয়, তাহলে এমন পরিস্থিতিতে তাকে তার নিকটতম ব্যাঙ্কের শাখায় যোগাযোগ করতে হবে (ATM Withdrawal)। যদি কোনো কারণে ব্যাঙ্ক বন্ধ থাকলে ব্যাঙ্কের কাস্টমার কেয়ারে ফোন করে জানাতে হবে তৎক্ষণাৎ। গ্রাহকের অভিযোগ নথিভুক্ত করা হবে। এর জন্য এক সপ্তাহ সময় পাবে ব্যাঙ্ক।

এটিএম থেকে টাকা তোলার সময়, এমন পরিস্থিতিতে সম্মুখীন হলে লেনদেন ব্যর্থ হতে পারে তবে এর প্রমাণ হিসেবে আপনাকে অবশ্যই এর স্লিপ সঙ্গে রাখতে হবে। তাই স্লিপটি নিতে হবে গ্রাহককে। যদি কোনও কারণে স্লিপটি না নেয় বা ভুলে যায় গ্রাহক তাহলে তিনি ব্যাঙ্কে একটি স্টেটমেন্টও দিতে পারেন। লেনদেনের স্লিপ গুরুত্বপূর্ণ কিন্তু যেহেতু এতে ব্যাঙ্ক থেকে এটিএম আইডি, অবস্থান, সময় এবং প্রতিক্রিয়া কোড প্রিন্ট করা থাকে।

আরও পড়ুন, যেকোনো ব্যাবসা শুরু করার জন্য সবচেয়ে সহজে এবং কম সুদে লোন দেয় এই ব্যাংক গুলো।

 আরবিআই এর এই বিষয়ে নির্দেশিকা তৈরি করেছে। এই ক্ষেত্রে, ব্যাঙ্ককে সাত দিনের মধ্যে গ্রাহকদের টাকা ফেরত দিতে হবে। ব্যাঙ্কিং অম্বুডসমানের কাছে যেতে পারেন যদি ব্যাঙ্ক টাকা ফেরত না দেয়। তবে তার পরে ব্যাঙ্ককে প্রতিদিন ১০০ টাকা করে গ্রাহককে দিতে হবে সাত দিনের পর থেকে।

আশাকরি আমাদের এই প্রতিবেদনটা আপনাদের ভালোলেগে থাকবে। ধন্যবাদ।

আরও দেখুন, মাত্র ২০ টাকার কমে ৩০ দিনের ভ্যালিডিটি, এই রিচার্জ প্ল্যান চিন্তায় ফেলে দিলো জিও এয়ারটেলকে।

Leave a Reply

Your email address will not be published.