Manage Exam Stress

Manage Exam Stress: শরীরের মারাত্বক ক্ষতি হওয়ার আগে জেনে নিন স্ট্রেস কমানোর টিপ্স্‌ গুলি

জীবনের কোনও না কোনও সময় সকলেই পরীক্ষায় উত্তীর্ন হওয়ার জন্য পড়াশোনা করে থাকি (Manage Exam Stress)। নির্দিষ্ট সময়ে পরীক্ষা শেষ হয়ে গেলেও ফলাফল নিয়ে একটা চাপা দুশ্চিন্তা প্রায় সকলের মনেই থাকে। এই দুশ্চিন্তার পরিমাণ অধিক পরিমাণে বেড়ে গেলে শরীর খারাপও হতে পারে। তাই পরীক্ষার পর দুশ্চিন্তা থেকে নিজেকে মুক্ত রাখার কয়েকটি কার্যকর টিপস্‌ সম্পর্কে আজকে এই প্রতিবেদনের মাধ্যমে জানানো হবে।

পরীক্ষা শেষ করে হল থেকে বেরিয়ে এসে অনেকে এমনও আছেন, যারা উত্তর পরীক্ষা করেন। সেই উত্তর ভুল মনে হলে নম্বর নিয়ে দুশ্চিন্তা অধিক পরিমাণে বেড়ে যায়। তাই বিশেষজ্ঞরা সব সময়ই বলে থাকেন এই পন্থা বেছে না নিতে। এছাড়াও অন্য কয়েকটি ভুল, স্ট্রেস বা দুশ্চিন্তার পরিমাণ দ্বিগুণ করে দিতে পারে। এই প্রতিবেদনের মাধ্যমে স্ট্রেস বাড়ার কারণ এবং এর থেকে মুক্তির উপায় সম্পর্কে বলা হবে। তাহলে চলুন শুরু করা যাক।

আরও দেখুনঃ একাদশ শ্রেণীতে ভর্তি নিয়ে নয়া বিজ্ঞপ্তি জারি করলো HS Council

১) প্রশ্ন-উত্তরের আলোচনা না করা-
পরীক্ষা শেষ হয়ে গেলে বন্ধু বা অন্য পরীক্ষার্থীর কাছ থেকে প্রশ্নের উত্তর জানতে চাওয়া যাবে না (Manage Exam Stress)। তাদের উত্তর ঠিক বা ভুলও হতে পারে। তাতে স্ট্রেসের পরিমাণ আরও বাড়বে। এর পরিবর্তে যে কয়টি উত্তর নিশ্চিতভাবে ঠিক মনে করছেন টা নিয়ে নিজেকে অভিনন্দন জানান।
২) আলাদা করে সময় কাটান-
পরীক্ষা দেওয়ার পর নিরিবিলি সময় কাটান। শান্ত ভাবে থাকার চেষ্টা করতে হবে। পারলে বাইরে বা বাগানে একটু হাঁটাহাঁটি করা যেতে পারে। সবসময় নিজেকে বলুন সাধ্যমত চেষ্টা করেছেন। পরীক্ষায় ঠিক উত্তীর্ন হবেন।

৩) ভালো বন্ধুর সংস্পর্শে থাকুন-
পরীক্ষা শেষ হলে এমন একজন বন্ধুর সাথে দেখা করুন, যিনি পরীক্ষার প্রশ্ন-উত্তর সম্পর্কে আলচনায় আপনাকে ব্যস্ত করে তুলবেন না। বরং হাসি-মজায় ব্যস্ত রেখে আপনার স্ট্রেস কমানোর চেষ্টা করবেন।

৪) পরীক্ষার ফলাফল প্রকাশের আগে কি করবেন-
ফলাফলের জন্য অপেক্ষার সময় কটা উত্তর ঠিক দিয়েছিলেন বা কত পেতে পারেন টা কল্পনা করবেন না (Manage Exam Stress)। এতে স্ট্রেস আরও বাড়তে পারে। বরং পরিবারের সদস্যদের বা ভালো বন্ধুদের সাথে কথোপকথনে ব্যস্ত রাখুন নিজেকে। ন্নিজের ভয়ের কথা সম্পূর্ণ খুলে বলুন তাদের।
বিশেষজ্ঞদের মতে, ফলাফল প্রকাশের আগের দিন কফি বা এনার্জি ড্রিঙ্ক খাওয়া ঠিক নয়। তাতে মানসিক চাপ বাড়তে পারে। এমনকি সোশ্যাল মিডিয়াও ব্যবহার করা যাবে না। সেখানে স্ট্রেস বাড়ানোর জন্য বিভিন্ন পোস্ট চোখে পড়তে পারে।

৫) স্বাস্থ্যকর কাহাবার খান-
অনেকেই জাঙ্ক ফুড খেতে বেশি ভালবাসেন। তবে সেগুলি স্বাস্থের পক্ষে ভালো নয়। তাই পরীক্ষার পরে স্ট্রেস কমাতে হলে শাক সবজি, ফল, কার্বোহাইড্রেট, হাই-ফাইবারযুক্ত খাবার, ফল বেশি করে খাওয়া ভালো। কখনও হাই-ফ্যাটি খাবার খাওয়া ঠিক নয়।

৬) ফলাফল প্রকাশের পর-
ফলাফল প্রকাশ করা হলে রেজাল্ট হাতে নিয়ে একটা দীর্ঘ নিঃশ্বাস ছাড়ুন। কম নম্বর পেলে ভেঙ্গে পড়বেন না (Manage Exam Stress)। সব সময় নিজেকে বলবেন আমি আমার যথাসাধ্য ভালো করা চেষ্টা করেছি। হাল ছাড়বেন না। পরের পরীক্ষার জন্য আরও ভালোভাবে প্রস্তুতি নিন।

আরও পড়ুনঃ আগামী সপ্তাহে খুলছে স্কুল, পুজোর ছুটি কমানোর প্রস্তাব।

উল্লেখ্য, স্ট্রেস কমানোর জন্য ইচ্ছে হলে পরামর্শদাতার পরামর্শ নিতে পারেন। অর্থাৎ এই বিষয়ে বিশেষজ্ঞের পরামর্শ নিতে পারেন। এই সংক্রান্ত অন্যান্য খবরের আপডেট পেতে হলে এই ওয়েবসাইটটি ফলো করতে ভুলবেন না।

Written by Manika Basak.

Leave a Reply

Your email address will not be published.