উচ্চ প্রাথমিকে পড়াচ্ছেন এমন যেসব শিক্ষক ডিএলএড উত্তীর্ণ হয়েছেন, তাঁরা এবার বার্ষিক ইনক্রিমেন্ট পাবেন। এই মর্মে বুধবার বিজ্ঞপ্তি প্রকাশ করল শিক্ষা দপ্তর। তাতে বলা হয়েছে, যে সব শিক্ষক দু’বছরের এই কোর্স করে ফেলেছেন, তাঁরা এবার বার্ষিক ইনক্রিমেন্টের সুবিধা পাবেন।

এই বিজ্ঞপ্তির ফলে বহু শিক্ষকই উপকৃত হবেন বলে জানা গিয়েছে। এতদিন সেই সুযোগ পাচ্ছিলেন না এই শিক্ষকরা। ২০০৯ সালে যে জারি করা বিজ্ঞপ্তিতে বলা হয়েছিল, মাধ্যমিকস্তরে কর্মরত শিক্ষকদের মধ্যে যাঁদের প্রশিক্ষণ নেই, তাঁরা ইনক্রিমেন্ট তখনই পাবেন, যখন এই প্রশিক্ষণপর্ব সম্পন্ন করবেন। তার জন্য অবশ্য পাঁচ বছরের সময় দেওয়া হয়। পরে উচ্চ প্রাথমিকের জন্য এনসিটিই স্পষ্ট করে জানিয়ে দেয়, বিএড না থাকলে পড়াতে পারবেন না। এদিকে, বহু শিক্ষকই বিএড করার সুযোগ পাচ্ছিলেন না। কলেজ কম থাকায় এই সমস্যা দেখা যায়। শেষমেশ অবশ্য এই ডিএলএড কোর্সের স্বীকৃতি মেলে। সেই মতো বহু শিক্ষকই কোর্সটি করে ফেলেন। কিন্তু তাতে এই বার্ষিক ইনক্রিমেন্ট পাচ্ছিলেন না অনেকেই। এবার সেই সুবিধা পেতে চলেছেন তাঁরা।
এ নিয়ে মাধ্যমিক শিক্ষক ও শিক্ষাকর্মী সমিতির সাধারণ সম্পাদক বিশ্বজিৎ মিত্র বলেন, আমরা এ নিয়ে বহুদিন ধরেই আন্দোলন করেছি। শেষ পর্যন্ত সরকার বিজ্ঞপ্তি প্রকাশ করেছে। আমরা তাকে স্বাগত জানাচ্ছি। তবে এই বিজ্ঞপ্তিতে একটা বিভ্রান্তি থেকে গিয়েছে। সেটা হল, অনার্স বা পিজি যোগ্যতা অনুযায়ী যাঁরা উঁচু ক্লাসে চাকরি পেয়েছেন, তাঁদের অনেকেই উচ্চ প্রাথমিকে পড়িয়েছেন এবং ডিএলএড কোর্স করেছেন। সেই শিক্ষকদের প্রসঙ্গ উল্লেখ করা হয়নি বিজ্ঞপ্তিতে।

এছাড়া শিক্ষকদের বদলী নিয়ে গুরুত্বপূর্ণ আপডেট।
Mutual transfer hearing list published.
To download link press this link
Press here to download

Leave a Reply

Your email address will not be published.