Old Note Sale

Old Note Sale : রোজগারের সঞ্চয় নতুন দিশা দেখাচ্ছে পুরনো কয়েন ও নোট

রোজগার ও সঞ্চয় (Old Note Sale) শব্দ দুটি এখনকার দুর্মূল্যের বাজারে ওতপ্রোতভাবে জড়িত। মাসের মধ্যে একদিন না একদিন কোনো না কোনো জিনিসের দাম নিঃসন্দেহে বেড়ে থাকে। তাই সবাই চেষ্টা করেন যাতে একটু বাড়তি রোজগারের মাধ্যমে সঞ্চয় করা যায়, অথচ কোনো কষ্ট যাতে না হয়।

এমনই একটি উপায় হলো পুরনো কয়েন বা নোট অনলাইনে বিক্রি করে রোজগার করা। তাই আপনার কাছেও যদি কোনো পুরনো কয়েন বা নোট থেকে থাকে, তাহলে প্রতিবেদনটি অবশ্যই পড়তে ভুলবেন না।

কথায় আছে, পুরনো চাল ভাতে বাড়ে। অর্থাৎ এক্ষেত্রে আপনি বলতে পারেন পুরনো কয়েন বা নোট আপনাকে লক্ষ্মীলাভ করাতে পারে। অনেকেই হয়তো জানেন আন্তর্জাতিক বাজারে বিভিন্ন ধরণের পুরনো কয়েন বা নোট (Old Note Sale) বেশ চড়া দামে নিলাম করা হয়। আবার অনেকের এই ব্যাপারে ততটা ধারণা নেই। অনেকেই হয়তো শখে নানা ধরণের কয়েন বা নোট জমিয়ে থাকেন।

তবে যারা জানেন তারা এগুলো ভালো দামে বিক্রির চেষ্টাও করে থেকেন। আবার অনেকে এমন জিনিস বিক্রি করতে অথবা কিনতে গিয়েও পড়েছেন বিপদে। তাই আজ যারা জানেন এবং যারা জানেন না, অর্থাৎ সকলের উদ্দেশ্যে এই বিশেষ প্রতিবেদনটি পেশ করা হচ্ছে। আসুন তাহলে জেনে নেওয়া যাক কোথায় এবং কিভাবে এই পুরনো কয়েন বা নোট বিক্রি (Old Note Sale) করা যেতে পারে।

অনলাইনে এমন অনেক ওয়েবসাইট আছে যেখানে পুরনো কয়েন বা নোট বিক্রি করা যায়। তবে অবশ্যই এক্ষেত্রে জন্য বিশ্বস্ত ওয়েবসাইটে গিয়ে সমস্ত নথিপত্র, শর্তাবলী পড়ে তবেই বিক্রি করা দরকার। কারণ এই সংক্রান্ত (Old Note Sale) অনেক প্রতারণার ঘটনা ইতিমধ্যে সামনে এসেছে। এমনই কয়েকটি বিশ্বস্ত ওয়েবসাইট হলো Quikr e-commerce ও coinbazaar.

এই ওয়েবসাইটগুলির মাধ্যমে কয়েন বা টাকা বিক্রি (Old Note Sale) করার জন্য প্রথমেই একজন সেলার হিসেবে নিজের নাম নথিভুক্ত করতে হবে ওয়েবসাইটে। সেখানে নিজস্ব ফোন নাম্বার, ইমেইল আইডি দিয়ে রেজিস্ট্রেশন অথবা লগইন করতে হবে। এটি করার সুবিধা হলো পরবর্তীকালে যদি কোনো ক্রেতার আপনার কয়েনটি বা নোটটি পছন্দ হয় তবে ক্রেতা সরাসরি আপনার দেওয়া ফোন নাম্বারে ইমেইল আইডিতে যোগাযোগ করে আপনার থেকে সেটি কিনতে পারবেন।

আরও পড়ুন, PSC তে ৬,০০০ শুন্যপদে নিয়োগ বিজ্ঞপ্তি, এখনই আবেদন করুন

তবে তখনই সেই নোট বা কয়েনটি পছন্দ হবে যখন সঠিকভাবে সেটির ছবি আপলোড করা হবে এবং বিক্রির (Old Note Sale) জন্য যে বিশেষ বৈশিষ্ট্যগুলি কারেন্সিতে থাকার কথা বলা হবে সেটি উপস্থিত থাকবে। প্রসঙ্গত, ১৯১৮ সালে ব্রিটিশ সম্রাট পঞ্চম জর্জের আমলে তৈরি একটি এক টাকার কয়েনের সম্প্রতি দাম উঠেছে ৯ লক্ষ টাকা। অর্থাৎ একসময় যেটি ছিল প্রচলিত এখন সেটি হয়ে উঠেছে দুর্লভ। তাহলে বুঝতেই পারছেন এখান থেকে আপনি কতটা লক্ষ্মী লাভ করতে পারবেন। তবে সঠিকভাবে যাচাই-বাছাই করে তবেই এদিকে এগোনো ভালো।

তাহলে দেরি কিসের এখনই খুঁজতে শুরু করে দিন পুরনো সব কয়েন, নোট এবং প্রস্তুত হয়ে যায় লক্ষ্মীলাভের জন্য। ব্যবসা ও অর্থনীতি সংক্রান্ত অন্যান্য খবরের আপডেট পেতে ফলো করতে ভুলবেন না এই ওয়েব পোর্টালটি।
Written by Manisha Basak.

আরও পড়ুন, ঈদের দিনেই দ্রুত শিক্ষক নিয়োগের আশ্বাস দিলেন মুখ্যমন্ত্রী

আরও পড়ুন, অফলাইনে PNB তে প্রচুর সংখ্যক নিয়োগ, এখনই আবেদন করুন

One thought on “Old Note Sale : এই বিশেষ পুরনো কয়েন বা নোট থাকলে হতে পারেন রাজার রাজা, কিভাবে জানুন”

Leave a Reply

Your email address will not be published.