post office new scheme

Post Office New Scheme – মূল্যবৃদ্ধির জেরে সন্তানের ভবিষৎ নিয়ে চিন্তিত! পোস্ট অফিসের এই স্কিমে বিনিয়োগের মাধ্যমে থাকতে পারেন চিন্তামুক্ত

শিশুদের ভবিষ্যৎ নিয়ে চিন্তা সব বাবা মায়েদের মনেই যথেষ্ঠ প্রভাব ফেলে (Post Office New Scheme)। তার উপর মূল্যবৃদ্ধির যুগে এই চিন্তা তো অতি আবশ্যক। শিশুদের এই ভবিষ্যৎ সুরক্ষিত করতে আপনারা যদি ভালো কোনো বিনিয়োগের বিকল্প খোঁজেন তাহলে আপনাদের জন্য পোস্ট অফিস নিয়ে এসেছে এক দারুণ সুযোগ। জেনে নিন এই স্কিমের ব্যাপারে বিস্তারিত ভাবে।

সন্তানের সব দায়িত্ব পালন করা তাকে ছোট থেকে বড়ো করে তোলা কোনোটাই সহজ কাজ না। তার জন্মগ্রহণ থেকে শুরু করে লেখাপড়া, বিয়ে পর্যন্ত অনেক টাকা খরচ হয় অভিভাবকের। তাই শিশুর জন্মের সময় থেকে সাবধান হতে হবে অভিভাবকদের (Post Office New Scheme)।

তাদের সুরক্ষিত উজ্জ্বল ভবিষ্যতের জন্য বেছে নিতে হবে সঠিক আর্থিক যোজনা(Post Office New Scheme)। আর আপনারা যদি এরকম কোনো ভালো রিটার্ন এর সহিত আর্থিক যোজনা চান তাহলে অবশ্যই বেছে নিতে হবে এই স্কিমটি। এর সম্পর্কে বিস্তারিত জানতে পুরো প্রতিবেদনটি অবশ্যই পড়তে হবে।

মূল্যবৃদ্ধির হাত থেকে বাঁচতে ও শিশুদের ভবিষ্যৎ সুরক্ষিত করতে পোস্ট অফিসের শিশু জীবন বিমার উপর এই স্কিমটি আপনাকে দিচ্ছে এক দারুন সুযোগ। চলুন দেখা যাক বিস্তারিত।

আরও দেখুন:  প্রতিদিন মাত্র ১৫০ টাকা বিনিয়োগে মেয়াদ শেষে পান ১০ লাখ টাকা, পোষ্ট অফিসের নয়া স্কীম।

পোস্ট অফিস শিশু জীবন বিমার বিশেষ বৈশিষ্ট্য:
১. এই স্কিমের সাহায্যে বাচ্চাদের সুন্দর ভবিষ্যৎ গড়ার লক্ষে আপনারা বিনিয়োগ করতে পারেন। তবে কেবল দুটি সন্তানের জন্য এই প্রকল্পের সুবিধে পাওয়া যাবে।
২. স্কিমে বিনিয়োগ করার জন্য শিশুদের বয়স হতে হবে ৫ থেকে ২০ বছরের মধ্যে (Post Office New Scheme)।

৩. স্কিমে বিনিয়োগ করলে ন্যূনতম ৩ লক্ষ টাকা আপনারা নিশ্চিতভাবে পাবেন।
৪. পলিসির প্রিমিয়াম অভিভাবকদের দিতে হবে।
৫.যিনি স্কিমে বিনিয়োগ করবেন তার বয়স ৪৫ বছরের বেশি হওয়া যাবে না।

৬.যদি পলিসিধারক পলিসির মেয়াদপূর্তির আগে মারা যান, তাহলে সন্তানকে পলিসির প্রিমিয়াম দিতে হবে না।
৭.পলিসির মেয়াদ শেষ হওয়ার পর শিশু ম্যাচিউরিটির পুরো অর্থ পাবেন।

৮. স্কিম টি নেওয়ার পর ৫ বছর প্রিমিয়াম দেওয়ার পরে আপনারা আর নাও দিতে পারেন।
৯. তবে এতে লোনের কোনো সুবিধে পাওয়া যাবেনা।
১০. স্কিমে বিনিয়োগ করলে আপনি আয়করের ধারা 80C-এর অধীনে ১.৫ লক্ষ টাকা কর ছাড় পাবেন।

বিনিয়োগ ও রিটার্ন পদ্ধতি:
১. পোস্ট অফিস চাইল্ড লাইফ স্কিমে আপনারা কমপক্ষে ৫ বছর ও সর্বোচ্চ ২০ বছরের জন্য বিনিয়োগ করতে পারেন।
২. এই স্কিমের জন্য প্রতিদিন আপনাকে প্রায় ৬ টাকা করে দিতে হবে অর্থাৎ এক মাসে প্রায় ১৮০ টাকা দিতে হবে। এক বছরের পরিমাণ হবে ২১ হাজার টাকার বেশি (Post Office New Scheme)।

৩.আপনি যদি এই পরিমাণ টাকা ২০ বছরের জন্য বিনিয়োগ করেন তাহলে রিটার্ন এ ৩ লাখ টাকা অবশ্যই পাবেন।
৪.এই স্কিমে আপনি প্রতি মাসে, তিন মাস অন্তর, কিংবা ছয় মাস কিংবা বছরে একবারও প্রিমিয়াম দিতে পারেন (Post Office New Scheme)।

মূল্যবৃদ্ধির বাজারে এই স্কিমটি নিশ্চিত ভাবে আপনাকে লাভবান করবে। এই বিষয়ে আরো জানতে পোস্ট অফিসের অফিসিয়াল ওয়েবসাইটে গিয়ে নোটিফিকেশন দেখতে পারেন।

আরও দেখুন : 100, 200 টাকার পেট্রোল না ভরিয়ে এই টাকার পেট্রোল ভরান, বেশী লাভ হবে।

3 thoughts on “Post Office New Scheme – এই প্রথম সন্তানের ভবিষ্যতের জন্য পোস্ট অফিসে এলো নতুন স্কিম, ঝড়ের গতিতে বাড়বে টাকা”

Leave a Reply

Your email address will not be published.