post office scheme

সকলের ভরসার জায়গা (Post Office Scheme) পোস্ট অফিস। আপনি যদি এককালীন কিছু টাকা রেখে পেনশন পেতে চান কিম্বা মেয়াদ শেষে ভালো রিটার্ন পেতে চান, তবে এই বাজারে চোখ বন্ধ করে টাকা রাখার জায়গা পোষ্ট অফিসের চেয়ে আর কিছু নেই। তাই (India Post) ইন্ডিয়া পোস্টের Monthly Income Scheme (MIS)-এ টাকা রাখা লাভজনক হতে পারে।

কী এই মাসিক আয় প্রকল্প(Post Office Scheme)
পোস্ট অফিসের এই প্রকল্পের অধীনে ১০০ বা ১০০০-এর শ্রেণিতে বিনিয়োগ করতে পারবেন আমানতকারী। তবে এই বিষয়ে একটা শর্ত রেখেছে ইন্ডিয়া পোস্ট। যেখানে বলা হয়েছে, কোনও ব্যক্তি একা এই প্রকল্পে সর্বোচ্চ ৪.৫ লক্ষ টাকা রাখতে পারবেন। যৌথ অ্যাকাউন্ট হোল্ডার হলে এই প্রকল্পে সর্বোচ্চ ৯ লক্ষ টাকা রাখা যাবে। এই প্রকল্পের আওতায় সর্বোচ্চ তিনজন জয়েন্ট অ্যাকাউন্ট খুলতে পারেন।

ন্যূনতম জমা অর্থ ১০০০ টাকা (Minimum deposit of Rs. 1000) এই স্কিমে আমানতকারী প্রতি মাসে সুদের টাকা নিতে পারেন। সেই কারণে একে Monthly Income Scheme (MIS)বলা হয়।বর্তমানে এই প্রকল্পের সুদ 6.6শতাংশ (Post Office Scheme)। সিম্পল ইন্টারেস্টের ওপর ভিত্তি করেই এই সুদ পাওয়া যাবে। প্রতি বছর এই সুদ পাওয়া যাবে।(Post Office Scheme)

ম্যাচুরিটির মেয়াদকাল (Maturity period is 5 years)
এই প্রকল্পে ম্যাচুরিটির মেয়াদকাল ৫ বছর। তবে গ্রাহক চাইলে স্কিমের মেয়াদ এক বছর না হলে টাকা তুলতে পারবেন না। এ ছাড়াও আমানতকারী বিনিয়োগের ১-৩ বছরের মধ্যে টাকা তুললে মূলধনের ২ শতাংশ কাটা হবে। এবং ৩-৫ বছরের মধ্যে টাকা তুলতে চান তাহলে মূলধনের ১ শতাংশ কেটে নেবে পোস্ট অফিস কর্তৃপক্ষ।

কেউ পোস্ট অফিসের (MIS) প্রকল্পে ৫০,০০০ টাকা রাখলে প্রতি মাসে ২৭৫ টাকা পাবেন তিনি। প্রতি বছর সেই হিসাবে সুদ আসবে ৩৩০০টাকা। ৫ বছর এই স্কিমে টাকা না তুললে কোনও ব্যক্তি সুদ পাবেন ১৬,৫০০ টাকা।একইভাবে কোনও আমানতকারী এই প্রকল্পে ৪.৭৫ লক্ষ টাকা রাখলে সেই থেকে তিনি প্রতি বছর সুদ পাবেন ২৯,৭০০টাকা। প্রতি মাসে সুদ হিসাবে তাঁর ঘরে ঢুকবে ২৪৭৫ টাকা। পাঁচ বছর সেই টাকার কেবল সুদ পাবেন, ১,৪৮,৫০০ টাকা।

5 thoughts on “Post Office Scheme – পোষ্ট অফিসে এককালীন মাত্র পঞ্চাশ হাজার টাকা রাখলে পাবেন লাখ লাখ টাকা, নতুন বছরের সেরা স্কীম”

Leave a Reply

Your email address will not be published.