WB SSC TET

WB SSC TET– কোনও না কোনও সংস্থাকে দিয়ে অনুসন্ধান করতেই হবে, কি উদ্দেশ্যে এই বক্তব্য? বিশদে জানুন

প্রাইমারি টেট পরীক্ষার নিয়োগের বিজ্ঞপ্তি প্রকাশ করা হয়েছিল ২০১৪ সালে (WB SSC TET)। এরপর ২০১৫ সালের ১১ অক্টোবর পরীক্ষা নেওয়া হয়েছিল। ২০১৭ সালের ৪ ডিসেম্বরের প্রকাশিত দ্বিতীয় লিস্টের মাধ্যমে নিয়োগ করা হয়েছিল ২৬৯ জনকে। এসএসসি নিয়োগ দুর্নীতিতে ইতিমধ্যেই বরখাস্ত করা হয়েছে ২৬৯ জন শিক্ষককে। নিয়োগ দুর্নীতি নিয়ে আদালতে বিচারপতির করা প্রশ্নের মুখে পড়ল পর্ষদ আইনজীবী।

অবশেষে কি পাওয়া গেলো বরখাস্ত শিক্ষকদের সমস্ত নথি? NEW UPDATE 2022

প্রসঙ্গত, প্রাথমিকে টেট নিয়োগ দুর্নীতি মামলায়, বিচারপতি অভিজিৎ গঙ্গোপাধ্যায়ের নির্দেশে সিবিআই তদন্তের কথা জানানো হয়। সেই রায়কেই চ্যালেঞ্জ জানাতে প্রাথমিক শিক্ষা পর্ষদ বিচারপতি সুব্রত তালুকদার এবং বিচারপতি লপিতা বন্দ্যোপাধ্যায়ের ডিভিশন বেঞ্চে যায় (WB SSC TET)। তবে গত মঙ্গলবার ওই ডিভিশন বেঞ্চের তরফ থেকে বিচারপতি সুব্রত তালুকদার পরীক্ষার্থীদের বাড়তি ১ নম্বর দেওয়া নিয়ে প্রশ্ন করেন।

কি প্রশ্ন করা হয়?
সংবাদমাধ্যম সূত্রের খবর, এদিন প্রাথমিক শিক্ষা পর্ষদের আইনজীবীর দিকে সরাসরি বিচারপতি সুব্রত তালুকদার বলেন, পর্ষদ কোনও ক্লাস টিচার নয় এবং তারা কোনও ক্লাস টেস্ট নিচ্ছে না। এটা একটা নিয়োগ প্রক্রিয়া। মনে হলেই কয়েকজন ব্যক্তিকে ১ নম্বর করে দেওয়া হবে এবং দিয়েও দিলেন! তিনি আরো বলেন, এটা কি ক্লাস টেস্ট? যে খেয়াল করার পর কয়েকজন ছাত্রকে ১ নম্বর দেওয়া হয়নি বলে বাকিদেরও বাড়তি নম্বর দিয়ে শান্তি রক্ষা করা হল?

এরপর আইনজীবীর উদ্দেশ্যে বিচারপতির প্রশ্ন করে বলেন, তাদের কি মনে হয় না যে তদন্তের প্রয়োজন রয়েছে? এই কান্ডের সাথে যুক্ত সকল ব্যক্তির আচরণ অপরাধমূলক ছিল কিনা, সেটা পরের কথা (WB SSC TET)। কোনও না কোনও সংস্থাকে দিয়ে অনুসন্ধান করতেই হবে। এছাড়াও ডিভিশন বেঞ্চের বিচারপতি লপিতা বন্দ্যোপাধ্যায়ও আইনজীবীর উদ্দেশ্যে প্রশ্ন করেন।

প্রসঙ্গত, সংবাদমাধ্যম সূত্রের খবর, বিচারপতি লপিতা বন্দ্যোপাধ্যায় প্রশ্ন করেন, ২০১৮ সালে যখন ৬ টি প্রশ্ন ভুলের অভিযোগে মামলা করা হয়, তখন কি তারা আদালতে জানিয়েছিলেন, যে ২০১৭ সালে কয়েকজন চাকরিপ্রার্থীকে বাড়তি ১ নম্বর দেওয়া হয়েছে? পর্ষদ আইনজীবী উত্তরে না করেন।

এছাড়া, শেষ শুনানির আগেরদিন কলকাতা হাইকোর্টের ডিভিশন বেঞ্চের তরফ থেকে মামলার সঙ্গে যুক্ত সব পক্ষকে, নিজেদের বক্তব্য লিখিত আকারে দেওয়ার নির্দেশ দেওয়া হয়েছিল (WB SSC TET)। যদিও শেষ শুনানির দিনও বক্তব্য লিখিত আকারে না দেওয়ায় ক্ষোভ প্রকাশ করেন বিচারপতি সুব্রত তালুকদার।

শিক্ষক নিয়োগে আরেকটি কেলেঙ্কারির পর্দা ফাঁস, ঐতিহাসিক নির্দেশ দিল আদালত, New Judgement 2022.

এই সংক্রান্ত অন্যান্য খবরের আপডেট সবার আগে পেতে হলে এই ওয়েবসাইটটি ফলো করতে ভুলবেন না।

Written by Manika Basak

Leave a Reply

Your email address will not be published.